সোমবার, ৩০ নভেম্বর, ২০০৯

এই ঠান্ডা এই গরম

ক্যানবেরায় এখন গ্রীস্মকাল। দু সপ্তাহ আগে কাঠ ফাটা প্রচন্ড গরমে মনে হচ্ছিলো শীতকালই ভালো ছিলো। সেই ক্যানবেরায় এখন শীতকুমারের ষড়যন্ত্রে কনকনে ঠান্ডা, সাথে দমকা বাতাস। হালকা বৃস্টিও হয়েছিলো আজ। এ মুহুর্তে তাপমাত্রা ১০.৮ ডিগ্রী সেলসিয়াস, মধ্যরাতে তা ৬-৭ এ নামবে। দুদিন আগে প্রচন্ড গরমে মনে হচ্ছিলো এসি কাজ করছে না, এখন মনে হচ্ছে হিটার কাজ করছে না। এখানকার আব হাওয়ার মতিগতি নারী মনের মতোই রহস্যময়ী, বোঝা দায়।

ক্যানবেরার মাছিগুলোকে মিস করছি। ধুমসো আকৃতির কালো কালো বিশালাকৃতির সব মাছি। বাতাসে সব মাছি মনে হয় অন্য কোথায় হিজরত করেছে।

বেশ অলস একটি দিন কেটে গেলো। তেমন কিছু করার ছিলো না। বছরের শেষের দিনগুলো কেমন জানি আলসেভাবেই কেটে যায়, সম্ভবত নতুন বছরের ব্যস্ততার প্রস্তুতি নিতে সামান্য অবসর দেন আল্লাহ তায়ালা।


ক্রিসমাস আসছে সেটা বাজারে গেলে বোঝা যায়। বাজারের সেল্ফে সেল্ফে ক্রিসমাস ঝলমল করছে।দেশে থাকতে দেখতাম ঈদ - পূজার সময়গুলোতে জিনিস পত্রের দাম বেড়ে যায়, এখানে তার উল্টো। সব কিছুর দাম যেনো পাল্লা দিয়ে কমতে থাকে। মানুষের পকেটের শেষ সেন্ট টুকু রেখে দেবার সেকি আপ্রান চেস্টা দোকানদারদের।

আজ আবারো সাদা পোলাও রেঁধেছি। রাঁধতে রাঁধতে মনে হয় পাকা রাঁধুনিই হয়ে যাবো। কে জানে ! সাথে ছিলো মুরগীর মাংস ও টমাটো সালাদ। কাল সুনিল দার বাসায় দাওয়াত। সন্ধ‌্যে বেলায়। বরাবরের মতোই আকন্ঠ খাওয়া হবে। ওজন নিয়ে চিন্তায় পড়ে যাচ্ছি। স্টুপিড গ্র্যাভেটি :-)

দিব্যর বয়স দেখতে দেখতে প্রায় দেড় বছর হতে চল্লো। সময় যে কি দ্রুত কেটে যায় বোঝাই যায় না। এইতো সেদিন বিয়ে করলাম, এখন ছেলে বড় হয়ে যাচ্ছে। কদিন বাদে দেখা যাবে ছেলের বিয়ের কথা ভাবতে হচ্ছে !

1 টি মন্তব্য :

  1. চরম আবহাওয়ার যন্ত্রণা বোধহয় কুইন্সল্যান্ড ছাড়া অস্ট্রেলিয়ার সর্বত্রই আছে। দখিনা বাতাস নিয়ে দেশে এতো আকুলতা আমাদের, এখানে এটা স্রেফ যমের নিঃশ্বাস। ঘোর গরমের মধ্যেও যুতমতো অ্যাংগেলে বাতাস আসলে গায়ে কাঁটা দেয়। শীতের শেষে লেপকম্বল তুলে রাখার দেশীয় অভ্যাস এই দেশে এখন পর্যন্ত চর্চা করতে পারলাম না!

    দিব্যর কথা পড়ে ভালো লাগলো। সত্যিই কীভাবে দিন যায়! ওর প্রজন্ম বিয়ের ভাবনা বাবামাকে ভাবার সুযোগ দিলেই তো!

    নুশেরা

    উত্তর দিনমুছুন

আপনার মন্তব্য পেলে খুশি হবো, সে যত তিক্তই হোক না কেনো।
পোস্টে মন্তব্যের দায়-দায়িত্ব একান্তই মন্তব্যকারীর। মন্তব্য মডারেশন আমি করি না, তবে অগ্রহনযোগ্য ( আমার বিবেচনায় ) কোনো মন্তব্য আসলে তা মুছে দেয়া হবে সহাস্য চিত্তে।